রোনালদোর মাঠে নামা হচ্ছে না

রোনালদোর মাঠে নামা হচ্ছে না

দুই ম্যাচ জন্য বহিষ্কার থাকার কারণে আল নাসরের হয়ে বৃহস্পতিবার প্রথম ম্যাচটি খেলা হচ্ছে না ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সিতে ২০২২ সালে এপ্রিলে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে এভার্টনের কাছে হারের পর সাজঘরে ফেরার সময় খুদে ভক্তের মোবাইল আছড়ে ভেঙে দেন রোনালদো। ফলে দুই ম্যাচের জন্য বহিষ্কার করা হয় তাকে।

প্রিয় নায়ককে হাতের কাছে দেখতে পেয়ে ছবি তোলার জন্য মোবাইল বাড়িয়েছিল ১৪ বছরের জেকব হার্ডিং। ম্যাচ হেরে যাওয়ায় মাথা গরম ছিল রোনালদোর। রাগে ফোনটা টেনে নিয়ে মাটিতে আছড়ে ফেলেন।

জেকবের মা সারাহ ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন রোনালদোর ওপর। এই ঘটনার পরে প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিলেন রোনালদো।

ম্যাচ হেরে রাগে ১৪ বছরের খুদের ফোন মাটিতে আছড়ে ভেঙে দিয়েছিলেন। এর ফলে তাকে দু’ম্যাচ নির্বাসিত করেছিল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এফএ)। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ার পরেও সরেনি সেই শাস্তির খাঁড়া।

আল তায়ের বিরুদ্ধে তার অভিষেক হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। আপাতত তা হচ্ছে না। মারসেসাইড পুলিশ তাকে ডেকে সতর্কও করে দিয়েছিল। আলাদা করে তদন্তে নামে এফএ। সেই তদন্তেই তার ওপর নেমে আসে শাস্তির খাঁড়া। দুই ম্যাচ বহিষ্কার করা হয় তাকে।

ম্যানইউ বিশ্বকাপের আগে শেষ ম্যাচ খেলে ফুলহ্যামের বিরুদ্ধে এবং বিশ্বকাপের পরে প্রথম ম্যাচ খেলে বার্নলের বিরুদ্ধে। ম্যানইউয়ের সঙ্গে চুক্তি বাতিল হয়ে যাওয়ায় এই দু’টি ম্যাচেই দলে ছিলেন না রোনালদো। ফলে ওই নিষেধাজ্ঞা তার নতুন ক্লাবের প্রথম দু’টি ম্যাচেই কার্যকর হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *