রংপুর মেডিকেলের অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগে তদন্তে দুদক

রংপুর মেডিকেলের অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগে তদন্তে দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ তদন্ত করতে এসে সত্যতা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন জেলা দূর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক। সোমবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত দুদকের সহকারী পরিচালক বেলাল হোসেনের

নেতৃত্বে দুদকের ৪ সদস্যের একটি দল রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগ, আউটডোরসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন। জরুরী বিভাগে অতিরিক্ত টাকা আদায়সহ হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনদের কাজ থেকে অর্থ আদায়ের সত্যতা পান।

এছাড়াও বকশিস, ট্রলি বাণিজ্য, চিকিৎসায় অবহেলাসহ নানা অভিযোগেরও প্রমান পেয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এ সময় দুদক সদস্যরা হাসপাতালের উপ-পরিচালক আ.ম আখতারুজ্জামানের সাথে সাক্ষাত করে অনিয়ম-দূর্নীতি বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলেন।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক সমস্যা নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন দুদক কর্মকর্তাদের।

দুদকের রংপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক বেলাল হোসেন জানান, ঢাকা প্রধান কার্যালয় থেকে ৫ ফেব্রুয়ারী রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অনিয়ম-দূর্নীতি নিয়ে একটি অভিযোগ পাওয়া যায়। সেটির তদন্তে এসে সেবা নিতে কর্মচারীদের বখশিস দিতে হয় এমন অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

সেই সাথে ওয়ার্ডগুলোতে রোগীরা ঠিকমত সেবা পাচ্ছে না। আমরা এসব বিষয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছে।

সেই সাথে তদন্ত প্রতিবেদন আমার ঢাকায় পাঠাবো। এরপর প্রধান কার্যালয়ের নির্দেশে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ আ.ম আখতারুজ্জামান জানান, দুদকের কর্মকর্তারা হাসপাতালের বিভিন্ন অনিয়মের কথা তুলে ধরেছেন।

আমি ও পরিচালক স্যার এ হাসপাতালে নতুন এসেছি। আমরা দু’জনে বসে সেই সমস্যাগুলো সমাধানের চেষ্টা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *