রংপুরের ২২ আসনেই জয়ী হবে জাতীয় পার্টি

রংপুরের ২২ আসনেই জয়ী হবে জাতীয় পার্টি

আহসান হাবিব মিলন।

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (মেয়র) মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান এর দায়িত্ব পাওয়ায় দলটির উত্তরাঞ্চলে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ঘুরে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করছেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাপার এমপি -প্রার্থীরাসহ রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

তাদের ধারনা নির্বাচনের মাঠ পর্যায়ে গিয়ে যদি (মেয়র) মোস্তফা কাজ করে তবে অনেক প্রার্থী নির্বাচনে বিজয় ছিনিয়ে আনবে বলে বিশ্বাস করছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীবৃন্দ।

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে গাইবান্ধা ১আসনের এমপি জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী প্রতিবেদককে বলেন,জাতীয় পার্টির বর্তমান অবস্থান অনেক শক্তিশালী হয়েছে, এবং এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে আগামীতেও আরো

-গতিশীল ও ব্যাপক সফলতা অর্জন হবে বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, একসময় জাতীয় পার্টির দোর্ঘ ছিল রংপুরের ২২টি আসন। দলীয় কোন্দলের সুযোগ নিয়ে কথিত বিশ্বাসঘাতক আর সুবিধাভোগীদের ক্ষমতার লোভ আর উচ্চ লালসায় দলকে দেওলিয়ায় পরিনত করেছিল।

দলের চেয়ারম্যান ও নীতি নির্ধারকদের সিদ্ধান্তে রসিক মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা জাপার কো- চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় উত্তরাঞ্চলের তৃনমুলের নেতা কর্মীরা অনেকটাই আস্থাশীল হয়ে কাজ করবেন বলে আশা করছি।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে, (জাপা) কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের নেতৃত্বে ৩০০ আসনে প্রার্থী নিশ্চিত করা হবে।
তবে পূর্বের মতো আর ভুল নয় এবারের সংসদ নির্বাচনে বর্তমান দলের নীতি নির্ধারকদের পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা আমাদের সফলতা অর্জন হবে বলে তিনি জানান।

তিনি আরো বলেন, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা কো-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের মোড় অনেকটাই ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আমার বিশ্বাস দলের এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে আমাদের কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি পাবে।

এছাড়াও আমি লালমনিরহাট-১ (পাটগ্রাম-হাতীবান্ধা) আসনের প্রার্থী আমার আসন থেকে ইনশাআল্লাহ বিজয়ী হবো।
তবে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে দলের নীতি নির্ধারকরা দলীয় কোন্দল নিরসন -সংলাপে বিশ্বাসঘাতকদের চিহ্নিত করতে পেরেছে এটাই বড় সফলতা।

তাদের সঙ্গে আর আঁতাত নয় বরং চ্যালেন্জ হিসেবে নিলেই আমাদের জয় সুনিশ্চিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন রংপুর গংগাচড়া ১আসনে জাতীয় পার্টি থেকে দলীয় মনোনয়নপত্র নেয়া প্রার্থী যুবসংহতি কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও জাপা চেয়ারম্যানের ভাতিজা সাবেক এমপি হুসেইন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ।জাপার অবস্থান ঘুরে দাঁড়াতে এবং সংসদ নির্বাচনে দলকে সুসংগঠিত

করে বিজয় ছিনিয়ে আনতে কি ভূমিকা থাকবে সে বিষয়ে জাপার কো- চেয়ারম্যান ও রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা প্রতিবেদককে বলেন,

মহান মুক্তিযুদ্ধের পর স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করার পর দেশ চলে যায় পাকিস্তানী পন্থীদের হাতে। তাদের পতনের পর বিধ্বস্ত এই দেশকে শিশুর মতো লালন করে সাবলম্বী করে তুলেছেন সাবেক প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ। তিনি বলেন আমরা তার আদর্শের অনুসারী। সেই আদর্শ লালন করে চললে আমাদের জয় সুনিশ্চিত।

বিশেষ করে রংপুরের ২২ আসনেই জয়ী হবে জাতীয় পার্টি।
তিনি আরো বলেন,আমরা আর কারো তোয়াক্কা করিনা, আমাদের দল এখন অনেক সুসংগঠিত। এবং এই ধারাবাহিকতা দলের জন্য আরো অনেক গতিশীল বয়ে আনবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *