মাটিতে বসে খেলে যেসব উপকার হয়

মাটিতে বসে খাওয়ার প্রবণতা দিন দিন কমে আসছে। ঘরে, অফিসে কিংবা রেস্টুরেন্টে সাধারণত চেয়ার-টেবিলে বসে খেতে দেখা যায়। অনেকের হয়তো জানা নেই ডাইনিংয়ে নয়, বরং মাটিতে বসে খাওয়া বেশি স্বাস্থ্যকর। মাটিতে বসে খাওয়ার অভ্যাস শরীরের ওপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলে, অনেক রোগ থেকে রক্ষাও করে। আসুন জেনে নেই মাটিতে বসে খাওয়ার উপকারিতাগুলো।

 

মানসিক চাপ দূর করে

 

মাটিতে বসে খাওয়ার অভ্যাস এক ধরনের যোগ ভঙ্গি। এতে আমরা যেভাবে একটি পা অন্য পায়ের ওপর রেখে বসি, তা পদ্মাসনের ভঙ্গি। এতে তলপেটের পেশিতে টান পড়ে। মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

 

হজম ভালো হয়

 

আপনি মাটিতে থালা রেখে সামান্য ঝুঁকে খান, তারপর আবার সোজা হয়ে বসেন, এটাই স্বাভাবিক অভ্যাস। বারবার এই ঘটনা ঘটে বলেই হজম হয় দ্রুত।

 

শরীরে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে

 

মাটিতে পা ভাজ করে বসলে শরীরে অক্সিজেন সরবরাহের পরিমাণও বেড়ে যায়। যার প্রভাব পড়ে সোজা হার্টের ওপর। হার্ট ভালো থাকে। মেরুদণ্ড ভালো থাকে

 

মাটিতে বসলে পদ্মাসনে বসা। যার ফলে স্পাইনাল কর্ডের নিচের অংশের ক্ষমতা বাড়তে শুরু করে। এতে কোমর ব্যথার সমস্যা অনেকটাই দূর হয়। আর যদি আপনি শারীরিকভাবে সুস্থ থাকেন তবে সেক্ষেত্রে আপনার মানসিক স্বাস্থ্যও ভালো থাকে। মানসিক স্বাস্থ্য ভালো থাকলে আমাদের মেজাজ উন্নত হয়। যার ফলে কাজ করার ক্ষমতা বেড়ে যায়। সারাদিনের ক্লান্তির পরেও ফুরফুরে মেজাজ অনেকটা মানসিক শান্তি রাখতে পারে।

 

ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে

 

অনেকেই মনে করেন, চেয়ার টেবিলে বসে খেলে ভেগাস নার্ভ ব্রেনে ঠিকমতো সংকেত পাঠাতে পারে না। আর এমনটা হওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবেই বেশি মাত্রায় খাওয়া হয়ে যায়। ফলে ওজন বাড়ে সঙ্গে বাড়ে ভুড়ির সমস্যা। ওজন একবার বাড়া শুরু হয়ে গেলে তা কমানো অত্যন্ত চাপের বিষয় হয়। তাই ওজন বাড়ার আগেই ব্যবস্থা নিয়ে রাখা স্বাস্থ্যকর এবং ভালো সিদ্ধান্ত।

 

সূত্র: এই সময়, টিভি নাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *