ফোনালাপ নিয়ে যা বললেন মাহি

ভিডিওতে মাহি বলেন, আসসালামু আলাইকুম, আমি মাহিয়া মাহি। আমি এখন হারাম শরীফে আছি মক্কাতে। সবাই নিশ্চয়ই জানেন যে, আমি ওমরাহ পালন করতে এসেছি। সেই কারণেই ফোন কল তেমন একটা রিসিভ করা হচ্ছে না। ফোন তেমন একটা হাতে রাখছি না। ইবাদত করতে এসেছি, ইবাদতটা ঠিকমতো করতে চাই।

 

তিনি বলেন, আমি যেটা বলার জন্য ভিডিওটা করছি সেটা হচ্ছে- আমি সেদিনও ভীষণ বিব্রত ছিলাম। নিজের আত্মসম্মানবোধে কতোটুকু আঘাত লেগেছে, সেটা শুধু আমি জানি, আমার আল্লাহ জানেন। আমিও আজকেও ভীষণভাবে বিব্রত। আজকে আরেকবার নিজে তো ছোট হয়েছি, দেশবাসীর কাছে আরো একবার ছোট হলাম। কিন্তু আপনারা নিজের থেকে একবার চিন্তা করে দেখবেন যে, এই ভাষার প্রতিউত্তর অথবা এই ব্যবহারের প্রতিউত্তর আমার আসলে কী দেওয়ার উচিত ছিলো।

 

মাহি বলেন, আদৌ আসলে কিছু বলার ভাষা আমার সেদিন ছিলো না। সেজন্য আমি প্রতিবাদ করিনি। আমি আমার নিজের মতন করে মনে হয়েছে যে, এভাবে পাশ কাটিয়ে যাওয়া উচিত। আমি চুপ থেকেছি, পাশ কাটিয়ে গেছি এবং এটা ঠিক দুই বছর আগের একটা ঘটনা ছিলো। আমি বরাবরের মতো সবসময় আমি আল্লাহর কাছে বলি যে, আল্লাহ আমি কষ্ট পেয়েছি। যার মাধ্যমে আমি কষ্ট পেয়েছি, কোনো না কোনো একদিন তার রেজাল্টটা তিনি পেয়েছেন এটা প্রমাণিত, আলহামদুলিল্লাহ।

 

আমি সাংবাদিক ভাইদের কাছে সরি বলার জন্য ভিডিওটা করছি উল্লেখ করে মাহি বলেন, আমি সবার ফোন কল রিসিভ করছি না, এই বিষয়টি নিয়ে এখানে কথা বলার মতো সেই রকম মানসিকতাটা আমার নেই। আপনারা আমার হয়ে, আমার জায়গা থেকে চিন্তা করবেন যে, আমি দোষী, নাকি দোষী না। আমি এতোটুকুই বলবো। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন, আল্লাহ যেন আমাদের ওমরাহটা কবুল করেন।

 

মাতি আরও বলেন, আল্লাহ স্বাক্ষী আমার কোনো দোষ ছিলো না। আমি জাস্ট একটা পরিস্থিতির শিকার ছিলাম। আসসালামু আলাইকুম।

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ, চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ও নায়ক ইমন-এর একটি ফোনালাপ ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল হওয়া ফোনালাপ সম্পর্কে একটি ভিডিও বার্তায় নিজের অবস্থান তুলে ধরেছেন মাহি।

 

বর্তমানে স্বামী রাকিব সরকার-এর সংগে ওমরাহ পালন করতে মক্কায় রয়েছেন মাহি। সেখান থেকে সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে নিজের ফেসবুকে ‘বিকৃত এবং কুরুচীপূর্ণ ব্যবহার ও ভাষার প্রতিউত্তরের ভাষা আমার জানা ছিলো না, নম্রতা আমার পারিবারিক শিক্ষা’ স্ট্যাটাস দিয়ে ভিডিওতে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *