নির্ধারণ হয়েছে বিপিএলের সম্ভাব্য সময়

২০১৯ সালে সবশেষ অনুষ্ঠিত হয়েছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। ২০১২ সালে প্রথম আসর অনুষ্ঠিত হলেও গত ৯ বছরে অনুষ্ঠিত হয়েছে ৬টি আসর। কোনো না কোনো কারণে বিরতি পড়ে যায় বিপিএলে।

 

২০১৯ সালে শেষ বার অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ২০২০ ও ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত হতে পারেনি করোনা মহামারির কারণে। অবশেষে ২০২২ সালে অনুষ্ঠিত হবার সম্ভাবনা জেগেছে। এর জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সম্ভাব্য সময়ও নির্ধারণ করেছে।

 

upay

বৃহস্পতিবার বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন সুজন গণমাধ্যমকে বলেছেন, “আমরা এখন পর্যন্ত যেটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ২০ জানুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিপিএলের স্লট রাখা আছে। এর মধ্যেই আমরা বিপিএল শেষ করব।”

 

এবারের বিপিএলে ৫টি দল অংশ নেবে। দলগুলো এখনও ঠিক না হলেও চলছে দল কেনাবেচার কার্যক্রম। নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, “পাঁচ তারিখ পর্যন্ত জমা দেওয়া যাবে। ততদিন ওয়েট করি। তারপর বলি।”

 

এদিকে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’। এই সময়ে বিপিএল আয়োজন হলেও বিদেশি খেলোয়াড়দের আসা নিয়ে কোনো বাধা হবে কি না এ নিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের দেশে তো স্বাভাবিক ভাবে চলছে। ওটার (ওমিক্রন) প্রভাব সেভাবে পড়ে নাই। যদি সরকারের কাছ থেকে পরে কোনো নিষেধাজ্ঞা আসে বিদেশি খেলোয়াড়দের ভ্রমণের ব্যাপারে। তখন বিষয়টাকে এখন যেভাবে চিন্তা করছি, তখন হয়তো কিছু ফাইন টিউনিং করতে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *