জোড়া ফিফটিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ

 

মুশফিক-লিটনের জোড়া ফিফটিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ

দলীয় ৬৯ রানে মধাহ্নভোজের বিরতির পর থেকে ফিরে দ্বিতীয় সেশনে কোনো উইকেট হারায়নি বাংলাদেশ দল। লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম দুজনই তুলে নেন ফিফটি। গড়েন ১২২ রানের অবিচ্ছেদ্য জুটি। চা-বিরতির আগ পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৭১ রান। লিটন ৬২ ও মুশফিক ৫৬ রানে ব্যাট করছেন।

 

চট্টগ্রাম টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে যেখন দলীয় স্কোর পঞ্চাশ ছুঁতেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা, তখন উইকেটে এসে অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিমকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন। তুলে নেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ১০তম অর্ধশতক। কম যাননি মুশফিকও, একই পথে হাঁটেন তিনি। হাসান আলীকে ব্যাক টু ব্যাক চার মেরে পঞ্চাশ উদযাপন করেন মিস্টার ডিপেন্ডবল।

 

upay

এর আগে, শুরুতে বেশ কয়েকটি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দিন শুরু করলেও ওপেনার সাইফ হাসান শাহিন শাহ আফ্রিদির ১৪১.৯ কি.মি বা ৮৮ মাইলের বাউন্সারে শর্ট লেগে দাঁড়ানো আবিদ আলীর হাতে বল তুলে ১৪ রানে আউট হোন।

 

বেশিক্ষণ স্থায়ী হননি আরেক ওপেনার সাদমান ইসলামও। হাসান আলীর বলটি সুইং করে এসে সাদমানের প্যাডে লেগে সাইফের সমান রানেই ফেরেন সাদমান। চার নাম্বারে নামা অধিনায়ক মুমিনুল হক ধীরেসুস্থে আগানোর চেষ্টা করেও সাজিদ খানের স্পিনে কাটা পড়েন ৯ রানে। নাজমুল হাসান শান্তও পারেনি সাইফ-সাদমানকে ছাড়াতে। ফাহিম আশরাফের বলে পয়েন্টে সাজিদ খানের তালুবন্দি হোন শান্ত।

 

বাংলাদেশ একাদশ

 

মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, এবাদত হোসেন চৌধুরী, আবু জায়েদ রাহি ও ইয়াসির আলি রাব্বি।

 

পাকিস্তান একাদশ

 

বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান, আব্দুল্লাহ শফিক, আবিদ আলী, আজহার আলী, ফাওয়াদ আলম, ফাহিম আশরাফ, হাসান আলী, নোমান আলী, সাজিদ খান ও শাহিন শাহ আফ্রিদি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *