ছুরিকাঘাতে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

মাদকসেবীর ছুরিকাঘাতে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

 

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছে মাদকসেবীকে ধরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতের শিকার পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক এ.এস.আই পেয়ারুল ইসলাম মারা গেছেন।শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সোয়া এগারোটার দিকে রংপুর মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

 

এর আগে শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে হারাগাছের সাহেবগঞ্জ এলাকায় মাদকাসক্ত এক যুবককে আটক করতে গেলে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়।মৃত এ.এস.আই পিয়ারুল ইসলামের কুড়িগ্রামের রাজার হাটের বিদ্যাননন্দন ইউনিয়নের মিন্টুু মাস্টারের ছেলে। পরিবারের ৩ ভাই বোনের মধ্যে সবার বড় তিনি,বিবাহিত জীবনে দু-সন্তানের বাবা পিয়ারুল।

 

 

তিনি ২০১২ সালে পুলিশের চাকরিতে যোগদান করেন।জানা গেছে, শুক্রবার মাঝরাতের দিকে গোপন খবরের ভিত্তিতে হারাগাছ থানার এ.এস.আই পেয়ারুল ইসলাম সাহেবগঞ্জ এলাকায় পলাশ নামের এক মাদকসেবীকে গাঁজাসহ গ্রেফতার করে।

 

এ সময় পলাশ তার কাছে থাকা চাকু দিয়ে এ.এস.আই পেয়ারুলের বুকে আঘাত করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন।

 

 

পরে গভীর রাতেই জরুরি ভিত্তিতে তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে অস্ত্রোপচার চালানোর পর আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা করা হয়। শনিবার সকাল সোয়া এগারোটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

 

মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত আলী সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ.এস.আই পেয়ারুল মৃত্যু বরণ করেছেন। দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এভাবে মৃত্যু বরণ আমাদের কোনভাবেই কাম্য নয়। অভিযুক্ত মাদকসেবীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *