কুড়িগ্রাম সোনাহাট স্থলবন্দর: চালু নেই ইমিগ্রেশন কার্যক্রম

কুড়িগ্রাম সোনাহাট স্থলবন্দর: চালু নেই ইমিগ্রেশন কার্যক্রম

মোবাশ্বের নেছারী কুড়িগ্রাম:

ইমিগ্রেশন কার্যক্রম ছারাই চলছে কুড়িগ্রামের সোনাহাট স্থল বন্দর। বন্দরটি চালু হওয়ার ১০ বছর হলেও ইমিগ্রেশন ব্যবস্থা নেই। ফলে আমদানি-রপ্তানি কাজে ভারতে যেতে লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর ব্যবহার করতে হয় ব্যবসায়ীদেকে। এতে ভোগান্তির পাশাপাশি অর্থ ও সময় অপচয় হচ্ছে তাদের।

জানাযায়, ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে দেশের ১৮তম স্থলবন্দর হিসেবে যাত্রা শুরু করে কুড়িগ্রামের সোনহাট স্থলবন্দর। চালুর পর থেকেই ব্যবসায়ীদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে বন্দরটি। এদিকে বন্দরটি চালু হওয়ার দীর্ঘ ১০ বছর অতিবাহিত হলেও এখনো শুরু হয়নি ইমিগ্রেশন কার্যক্রম। সে কারনে চরম দুর্ভোগে পরেছেন ব্যবসায়ীরা।

এবিষয়ে ব্যবসায়ী নেতারা জানান, সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ করা হলেও কোন ফল পাওয়া যাচ্ছে না। এ কারনে অনেক ব্যবসায়ী এই বন্দর থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন।

কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. সাইদুল আরীফ জানান,
এ বন্দরে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম চালুর ব্যপারে খুব শিগগির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার নেয়া হবে।

কুড়িগ্রাম সোনাহাট স্থল বন্দরে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম চালু হলে এ বন্দর দিয়ে আমদানি রপ্তানি বাড়ার পাশাপাশি সরকারের রাজস্ব আয় অনেকটা বেড়ে যাবে এমনটাই প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *