এক দো তিন’ নাচে ঝড় তুলেছিলেন মাধুরী দীক্ষিত

এক দো তিন’ নাচে ঝড় তুলেছিলেন মাধুরী দীক্ষিত,

যে সিনেমায় ‘এক দো তিন’ নাচে ঝড় তুলেছিলেন মাধুরী দীক্ষিত, সেই ‘তেজাব’ রিমেক হচ্ছে বলিউডে। আগে শোনা গিয়েছিল নতুন সিনেমায় মাধুরীর ভূমিকা নেবেন শক্তি কাপুরের মেয়ে শ্রদ্ধা কাপুর; এখন শোনা গেল, বদলে গেছে নায়িকা, আসছেন শ্রীদেবীর মেয়ে জাহ্নবী কাপুর।

‘তেজাব’ এর রিমেকে নায়িকার সঙ্গে নায়কও বদলে গেছে বলে খবর দিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া। আগে যেখানে কার্তিক আরিয়নের নাম শোনা গিয়েছিল, এখন শোনা যাচ্ছে রণবীর সিংয়ের নাম।

আর এটা সত্যি হলে অনীল কাপুর ও মাধুরীর তিন যুগ পর ‘তেজাব’ জ্বালতে আসছেন রণবীর ও জাহ্নবী।

তেজাবে অনীল-মাধুরীকে বেঁধেছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা এম চন্দ্র। ১৯৮৮ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমাটি হয়েছিল সুপারহিট। ওই সিনেমায় ‘এক দো তিন’ গানের সঙ্গে মাধুরীর নাচ তুমুল জনপ্রিয় হয়েছিল।

বলিউডে অভিষেক তার আগে হলেও ওই সিনেমা দিয়েই আসন পাকা করে নেন মাধুরী।

গত বছর তেজাবের স্বত্ব কিনে নেন ‘কবীর সিং’খ্যাত প্রযোজক মুরাদ খেতানি। সিনেমার রিমেকের জন্যই তার এই পদক্ষেপ। তখনই শোনা গিয়েছিল, শ্রদ্ধা কাপুর আর কার্তিক আরিয়ানকে নিয়ে নতুন তেজাব আসছেন তিনি।

টাইমস অব ইন্ডিয়া এখন জানাচ্ছে, সেই ভাবনা থেকে সরে এসেছেন ভাবনা থেকে সরে এসেছেন প্রযোজকরা। এখন সিনেমার মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের

জন্য তারা রণবীর সিং ও জাহ্নবী কাপুরকে বেছে নিয়েছেন। কিছুদিন আগে এই দুই তারকার সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি চূড়ান্তও করেছেন।

তেজাবের স্বত্ব কেনার বিষয়ে বলতে গিয়ে খেতানি বলেন, “তেজাব একটি আইকনিক সিনেমা এবং সিনেমাটিকে রিমেক করার সময় এই সময়ের ছাঁচে ফেলে নেব গল্পটিকে।”

এদিকে রিমেকের খবরে অসন্তোষ জানিয়েছেন মূল সিনেমার পরিচালক এন চন্দ্র। তিনি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, “তেজাব একটি আইকনিক সিনেমা এবং আমি মনে করি না এটি পুনর্নির্মাণ করা উচিৎ।

আমি কিংবা অন্য কেউই হোক, এই ধরনের সিনেমাকে কাঁটাছেড়া করা উচিৎ নয়।”

তেজাবে অভিনয় করে ১৯৮৮ সালে সেরা অভিনেতার ফিল্মফেয়ার জিতেছিলেন অনীল, মাধুরীও মনোনয়ন পেয়েছিলেন।

এছাড়া সেরা সিনেমা, সেরা পরিচালক, সেরা কোরিওগ্রাফিসহ মোট ১২টি বিভাগে মনোনীত হয়েছিল ‘তেজাব’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *