অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন হাজারো যাত্রী

 

মুখোমুখি দুই ট্রেন, অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন হাজারো যাত্রী

চলন্ত অবস্থায় একই লাইনে চলে আসে দুটি ট্রেন।সামান্য দূরত্বে মুখোমুটি ট্রেন দুটি।কয়েক সেকেন্ড এগুলেই ঘটতো বড় ধরনের দূর্ঘটনা।কিন্তু চালকের দক্ষতায় অল্পের জন্য জন্য রক্ষা পেলেন ট্রেনের কয়েক শ যাত্রী।

 

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লা সদরের ধর্মপুর এলাকায়। বেলা ১টা ৪৮ মিনিটে দুটি ট্রেন একই লাইনে এসে পড়লে প্রাণহানির এই আশঙ্কা দেখা দেয়।

 

 

তবে চালকরা ট্রেন দুটি আগেই থামিয়ে ফেললে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পান যাত্রীরা।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকামুখী কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি নির্ধারিত সময়ের চেয়ে প্রায় ২০ মিনিট দেরিতে কুমিল্লা স্টেশনে প্রবেশ করে। এ সময় বিপরীত দিক থেকে একই লাইনে আসছিল ম্যাক্সের পাথরবোঝাই একটি ট্রেন।

 

আনুমানিক ১২০ গজ দূরত্বে গাড়ি থামিয়ে ফেলেন দুই ট্রেনের চালক। এ সময় বেশ কিছুক্ষণ ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।

 

এতে আতঙ্কিত হয়ে কর্ণফুলী ট্রেনের যাত্রীরা হুড়োহুড়ি করে নেমে পড়েন। তবে কারও আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

 

দুটি ট্রেন একই লাইনে চলে আসায় স্টেশনমাস্টারকে দায়ী করছেন কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের স্টাফরা। আর ম্যাক্সের স্টাফরা দোষারোপ করছেন কর্ণফুলীর চালককে।

 

কুমিল্লার স্টেশনমাস্টার সফিকুর রহমান ভূঁইয়া বলছেন, ভুল-বোঝাবুঝির কারণে এমনটা হয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যে ট্রেন চলাচল ফের শুরু হয়।

 

রেলওয়ে কুমিল্লার ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী (পথ) লিয়াকত আলী মজুমদার বলেন, ঘটনাটি শুনে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এখন লাইন ঠিক আছে। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *